বৃহস্পতিবার, ১৩ Jun ২০২৪, ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
চেয়ারম্যান: মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন, বার্তা প্রধান : মোহাম্মদ আসিফ খোন্দকার, আইনবিষয়ক সম্পাদক: অ্যাডভোকেট ইলিয়াস , যোগাযোগ : ০১৬১৬৫৮৮০৮০,০১৮১১৫৮৮০৮০, ঢাকা অফিস: ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম রোড, চৌধুরী মল (৫ম তলা), টিকাটুলি ১২০৩ ঢাকা, ঢাকা বিভাগ, বাংলাদেশ মেইল: bdprotidinkhabor@gmail.com চট্টগ্রাম অফিস: পিআইবি৭১ টাওয়ার , বড়পুল , চট্টগ্রাম।
সংবাদ শিরোনাম:
হাড্ডাহাড্ডি দুই চৌধুরীর ‘লড়াই লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জিতে গেলেন খোরশেদুল আলম চৌধুরী কোন লক্ষণে বুঝবেন বিবাহবিচ্ছেদ ঘটতে পারে? সিসিটিভি ফুটেজ এবং ‘Hello CMP’ অ্যাপের “আমার গাড়ি নিরাপদ” সেবার সহায়তায় মুখে হাসি ‘সরকার নারীর গৃহস্থালি কাজের অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের বিষয় বিবেচনা করছে’- অর্থ প্রতিমন্ত্রী যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যাবধানে মোটরসাইকেল বিজয় হয়েছে কান চলচ্চিত্র উৎসবের পর্দা নেমেছে, যেসব সিনেমা পুরস্কার পেল নওগাঁর বদলগাছিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে চন্দনা রানী নামে এক নারীর মৃত্যু নওগাঁ ঘোষপাড়া কালী মন্দিরের কালীর প্রতিমা ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা আগামী বাজেটে মূল্য স্ফীতি রোধে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে- অর্থ প্রতিমন্ত্রী ধনবাড়ী সিঙ্গার প্লাস শো-রুম থেকে ফ্রিজ কিনে ১০০% ফ্রি ফ্রিজ বিজয়ী নুরজাহন বেগম

উত্তরায় শ্রমিকদের উপর পুলিশের বর্বরোচিত হামলায় সিপিবি’র নিন্দা

উত্তরায় দুই মাসের বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের  দাবিতে আন্দোলনরত শ্রমিকদের উপর পুলিশী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।

গতকাল (২৫ এপ্রিল) সোমবার  ২০২২, এক বিবৃতিতে কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি কমরেড মোহাম্মদ শাহ আলম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ইন্ট্রাকো ডিজাইন লিঃ এবং ইন্ট্রাকো ফ্যাশন লিঃ এর শ্রমিকদের দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে।

বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাস পরিশোধ করার দাবিতে প্রায় দেড় হাজার শ্রমিক গত ৬দিন যাবৎ কারখানায় অবস্থান করে আন্দোলন চালিয়ে আসছে। কিন্তু সরকার ও বিজিএমইএ আজ  (২৬ এপ্রিল) মঙ্গলবার,  পর্যন্ত বকেয়া পাওনা পরিশোধের কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বরং শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের সময় আজ পুলিশ শ্রমিকদের উপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবি করে বলেন, দ্রব্যমূল্য মানুষের জীবনকে দুর্বিসহ করে তুলেছে। খাবারের পরিমান কমিয়ে দিয়ে স্বল্প আয়ের শ্রমজীবী মানুষ কোনোভাবে বেঁচে আছে। সেই সময়ে শ্রমিকের বেতন আটকে রাখা সব থেকে বড় অপরাধ। এর জন্য যেখানে মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবার কথা তা না করে শ্রমিকের ওপর হামলা ও তাকে রক্তাক্ত করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, পোশাক খাতে যে সংকট সৃষ্টি হচ্ছে তার দায়, মালিক ও সরকারকেই নিতে হবে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সকল কল কারখানায় শ্রমিক   কর্মচারীদের বেতন-বোনাস ঈদের আগে পরিশোধের দাবি জানান।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ওয়েবসাইট এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Design & Development BY ThemeNeed.Com