রবিবার, ১৪ Jul ২০২৪, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
চেয়ারম্যান: মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন, বার্তা প্রধান : মোহাম্মদ আসিফ খোন্দকার, আইনবিষয়ক সম্পাদক: অ্যাডভোকেট ইলিয়াস , যোগাযোগ : ০১৬১৬৫৮৮০৮০,০১৮১১৫৮৮০৮০, ঢাকা অফিস: ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম রোড, চৌধুরী মল (৫ম তলা), টিকাটুলি ১২০৩ ঢাকা, ঢাকা বিভাগ, বাংলাদেশ মেইল: bdprotidinkhabor@gmail.com চট্টগ্রাম অফিস: পিআইবি৭১ টাওয়ার , বড়পুল , চট্টগ্রাম।
সংবাদ শিরোনাম:
বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেননি উন্নয়নের চুক্তি করেছেখাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদা নওগাঁর মান্দা গোটগাড়ী অধ্যক্ষের কক্ষের তালা ভেঙে প্রবেশ করলেন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাংবাদিকদের বিতর্কিত করায় এনবিআর কর্মকর্তা মতিউরের প্রথম স্ত্রী লাকীর বিরুদ্ধে বিএমইউজে চট্রগ্রাম জেলা আহবায়ক কমিটির প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের প্রয়াণ দিবস আজ জুয়া খেলার সরঞ্জাম ও নগদ টাকাসহ পাঁচজন জুয়াড়ি গ্রেফতার বিপৎসীমার ওপরে তিস্তা-ধরলার পানি, পানিবন্দি ১৫ হাজার মানুষ হাড্ডাহাড্ডি দুই চৌধুরীর ‘লড়াই লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জিতে গেলেন খোরশেদুল আলম চৌধুরী কোন লক্ষণে বুঝবেন বিবাহবিচ্ছেদ ঘটতে পারে? সিসিটিভি ফুটেজ এবং ‘Hello CMP’ অ্যাপের “আমার গাড়ি নিরাপদ” সেবার সহায়তায় মুখে হাসি ‘সরকার নারীর গৃহস্থালি কাজের অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের বিষয় বিবেচনা করছে’- অর্থ প্রতিমন্ত্রী

হুইপের ভাইয়ের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ আসামি ৭৩, গ্রেফতার ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামের পটিয়ায় নির্বাচনী সংসহিতার ঘটনায় হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর ভাইয়ের মামলায় স্থানীয় কুসুমপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকারিয়া ডালিমসহ আওয়ামী লীগের ৭৩ জনকে আসামি করা হয়েছে।

রোববার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে পটিয়া থানায় মামলাটি রেকর্ড হয়। হুইপের ভাই মুজিবুল হক চৌধুরী নবাব বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলায় ১৩ জনকে এজাহারনামীয় এবং ৫০/৬০ জনকে অজ্ঞাত সন্ত্রাসী উল্লেখ করে আসামি করা হয়।

মামলায় হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর নির্বাচনী ঈগল প্রতীকের প্রচারণার গাড়িবহরে গুলিবর্ষণ ও হামলা চালিয়ে ২৮ জনকে আহত করার অভিযোগ করা হয়। এর আগে শনিবার রাতেই আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রোববার বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। তবে ম্যাজিস্ট্রেট না থাকায় তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ নিয়ে মামলার আসামি কুসুমপুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম হোসাইন রানা বলেন, হুইপ বিভিন্ন সময় নিজেরা ঘটনা ঘটিয়ে নৌকার কর্মী সমর্থকদের উপর দোষ চাপাচ্ছেন। নৌকার কর্মী সমর্থকরা কুসুমপুরায় সাধারণ জনতার রোষানল থেকে তাদের উল্টো উদ্ধার করেছে।

আর এখন নৌকার কর্মী সমর্থকদের মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। উনি আওয়ামী লীগের হুইপ। আমরা আওয়ামী লীগের তৃণমূলের কর্মী। আমরা নৌকাকে জয়ী করার জন্য কাজ করছি। আমাদের নির্বাচনী প্রচারণা থেকে নিবৃত করার জন্য মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার বিকেলে কুসুমপুরা ইউনিয়নের পান্না পাড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িবহরে গুলিবর্ষণ ও হামলা করে স্থানীয় নৌকার সমর্থক ও অনুসারীরা।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ওয়েবসাইট এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Design & Development BY ThemeNeed.Com