রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোঃ বিল্লাল হোসেন।  আইনবিষয়ক সম্পাদক: অ্যাডভোকেট রাসেল । যোগাযোগ : ০৩১-৭২৮০৮৫, ০১৮১১৫৮৮০৮০ মেইল: bdprotidinkhabor@gmail.com জহুর উল্লাহ বিল্ডিং (৩য় তলা), পানওয়ালা পাড়া, চৌমুহনী, উত্তর আগ্রাবাদ ১২৭৭, চট্টগ্রাম।
সংবাদ শিরোনাম:
বিপিএম ও পিপিএম পদক পাচ্ছেন মৌলভীবাজার জেলার তিন পুলিশ অফিসার কমলগঞ্জে দিনব্যাপি পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত মহাসড়কে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি জোরদার করতে হবে: হাইওয়ে পুলিশ প্রধান লোহাগাড়ায় আইডিয়াল স্কুলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আলোচনা, বার্ষিক পুরুষ্কার বিতরণী ও সেরা মা অ্যাওয়ার্ড প্রদান সংগঠন বিরোধী কার্ষকলাপের অভিযোগে যশোর জেলা  যুবলীগ নেতা মিলনকে অব্যাহতি ভাষা শহিদদের প্রতি মৌলভীবাজার পুনাকের শ্রদ্ধাঞ্জলি মৌলভীবাজারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে পুলিশ আওয়ামী লীগ হট্রগোল শ্রীমঙ্গলে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ গভীর শ্রদ্ধার সাথে ভাষা শহীদদের স্মরণ শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী’র উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস পালিত

সংবাদ সম্মেলন করেছেন পৌরসভার ১১ কাউন্সিলর

সাতক্ষীরার পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতির বিরুদ্ধে এবার ক্ষমতার অপব্যবহার, বিধিনিষেধ পরিপন্থি কার্যক্রম পরিচালনাদূর্নীতি, স্বজনপ্রীতিসহ নানা অভিযোগ তুলে ধরে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছেন পৌরসভার ১১ কাউন্সিলর।

গতকাল (৭ ফেব্রুয়ারি) সোমবার  দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত কাউন্সিলদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, প্যানেল মেয়র ও ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী ফিরোজ হাসান।

তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ১৩ জানুয়ারী মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতির নানা অনিয়ম দূর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় বরাবর লিখিত আবেদন করি। যা বর্তমানে তদন্তাধীন।

এরই মধ্যে উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপাতে রোববার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এসে তিনি নিজেকে সাধু এবং সকল কাউন্সিলরবৃন্দকে অসাধু ব্যাখ্যা দিয়ে মিথ্যা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যমূলক কথা বলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

যা খুবই দুঃখজনক। আমরা উক্ত মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনি বলেন, ক্ষমতার অপব্যবহার করে পৌর মেয়র ৭৬ লাখ ৫৬ হাজার ৯২০ টাকার পানির বিল মওকুফ করেছেন।

যা পৌর আইন লঙ্ঘন করেছেন। অথচ পানি সরবরাহ শাখার সাড়ে ৫ কোটি বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। তিনি বাজার ব্যবস্থাপনায় অনিয়মের মাধ্যমে আর্থিক সুবিধা গ্রহন করেছেন। সম্পূর্ণ বিধি নিষেধ পরিপন্থীভাবে তিনি হাট বাজার ইজারা গ্রহীতা গ্রহনের নিকট প্রায় ১ কোটি ১৮ লাখ ৯৫ হাজার
৯৭১ টাকা বকেয়া রেখেছেন।

তিনি অবৈধ সিন্ডিকেট করে তা দলীয় পছন্দ লোকের নিকট হাট বাজার ইজারা প্রদান করেছেন। এছাড়া বিগত তিন বছরের ময়লার ও সেপটি ট্যাংক পরিষ্কারের সমুদয় অর্থ আত্মসাৎ করেছেন। এ খাতে তিনি ১৩ কোটি ২৮

লাখ ৯৬ হাজার টাকা আতœসাৎ করেছেন। তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে ১ কোটি ৩৩ লাখ ৩ হাজার ২২১ টাকার পৌরকর ও ১০ লাখ ২ হাজার ৬৯৬ টাকার লাইসেন্স ফি মওকুফ করেছেন

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ওয়েবসাইট এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Design & Development BY ThemeNeed.Com