বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোঃ বিল্লাল হোসেন।  আইনবিষয়ক সম্পাদক: অ্যাডভোকেট রাসেল । যোগাযোগ : ০৩১-৭২৮০৮৫, ০১৮১১৫৮৮০৮০ মেইল: bdprotidinkhabor@gmail.com জহুর উল্লাহ বিল্ডিং (৩য় তলা), পানওয়ালা পাড়া, চৌমুহনী, উত্তর আগ্রাবাদ ১২৭৭, চট্টগ্রাম।
সংবাদ শিরোনাম:
ভাষা শহিদদের প্রতি মৌলভীবাজার পুনাকের শ্রদ্ধাঞ্জলি মৌলভীবাজারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে পুলিশ আওয়ামী লীগ হট্রগোল শ্রীমঙ্গলে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ গভীর শ্রদ্ধার সাথে ভাষা শহীদদের স্মরণ শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী’র উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস পালিত ঢাকা-কক্সবাজার পথে পাঁচ দিনে ৫ ‘বিশেষ ট্রেন’ আর্জেন্টিনার ক্লাব ছেড়ে আবাহনীতে খেলবেন জামাল? নওগাঁ আজ যথাযোগ্য মর্যাদায় মধ্যেদিয়ে পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস লোহাগাড়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বীর শহীদদের প্রতি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন লোহাগাড়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে ব্রিকফিল্ড মালিক সমিতির পুষ্প অর্পণ

যশোরে আদালতের আদেশে বহুল আলোচিত হায়দার আলীর মরদেহ উত্তোলন

পারভেজ আলী মোহর যশোর অফিস:

যশোরের চৌগাছায় আদালতের আদেশে বহুল আলোচিত সীমান্তবর্তী মাকাপুর গ্রামের হায়দার আলীর মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। আলোচিত হত্যা মামলাটি সিআইডির উপর ন্যস্ত হলে অধিকতর তদন্তের জন্য আদালতে মরদেহ উত্তোলনের আবেদন করা হয়। তারই প্রেক্ষিতে আদালতের আদেশে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত খান মঙ্গলবার সকালে মাকাপুর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে নিহতের মরদেহ উত্তোলন করেন।

মরদেহ উত্তোলনের বিষয়টি থানা পুলিশ নিশ্চিত করেছে।জানা গেছে, গত বছরের ২২ নভেম্বর হায়দার আলীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে- এমন অভিযোগে ব্যরিস্টার ছেলে মুর্তজা রাসেলসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন নিহতের স্ত্রী লতিফা হায়দার। মামলায় উল্লেখ করা হয়, হায়দার আলী পৈত্রিক ও ক্রয় সূত্রে সাড়ে ১৩ একর জমির মালিক ছিলেন।

এ জমি আসামি মর্তুজা রাসেল তার নামে রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার জন্য তার পিতার উপর মানসিক চাপ প্রয়োগ করে আসছিলেন। এ ঘটনায় ২০১৪ সালের ১৩ ডিসেম্বর চৌগাছা থানায় একটি জিডি করা হয়। গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি বাবাকে আসামি মর্তুজার হেফাজতে নেন।

এরপর আসামিরা মর্তুজার নামে জমি রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার জন্য চাপ দেয় হায়দার আলীকে। জমি রেজিস্ট্রি করে নিতে ব্যর্থ হয়ে আসামিরা হায়দার আলীকে ওষুধ প্রয়োগ করে অসুস্থ করে ফেলে। পরবর্তীতে তিনি মারা যান।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ওয়েবসাইট এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Design & Development BY ThemeNeed.Com