বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
প্রকাশক ও সম্পাদক : মোঃ বিল্লাল হোসেন।  আইনবিষয়ক সম্পাদক: অ্যাডভোকেট রাসেল । যোগাযোগ : ০৩১-৭২৮০৮৫, ০১৮১১৫৮৮০৮০ মেইল: bdprotidinkhabor@gmail.com জহুর উল্লাহ বিল্ডিং (৩য় তলা), পানওয়ালা পাড়া, চৌমুহনী, উত্তর আগ্রাবাদ ১২৭৭, চট্টগ্রাম।
সংবাদ শিরোনাম:
ভাষা শহিদদের প্রতি মৌলভীবাজার পুনাকের শ্রদ্ধাঞ্জলি মৌলভীবাজারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে পুলিশ আওয়ামী লীগ হট্রগোল শ্রীমঙ্গলে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ গভীর শ্রদ্ধার সাথে ভাষা শহীদদের স্মরণ শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী’র উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস পালিত ঢাকা-কক্সবাজার পথে পাঁচ দিনে ৫ ‘বিশেষ ট্রেন’ আর্জেন্টিনার ক্লাব ছেড়ে আবাহনীতে খেলবেন জামাল? নওগাঁ আজ যথাযোগ্য মর্যাদায় মধ্যেদিয়ে পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস লোহাগাড়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বীর শহীদদের প্রতি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন লোহাগাড়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে ব্রিকফিল্ড মালিক সমিতির পুষ্প অর্পণ

সিন্ডিকেটের কৃত্রিম বাঁধ কেটে আড়াই হাজার একর বনভূমি উদ্ধার

মোঃ সেলিম উদ্দিন খান (বিশেষ প্রতিনিধি)

চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত সাবেক সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভীসহ প্রভাবশালী সিন্ডিকেট কর্তৃক চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার সোনাকানিয়া ইউনিয়নে বাঁধ দিয়ে তৈরি করা কৃত্রিম লেকের আড়াই হাজার একর বনভূমি উদ্ধার করেছে বন বিভাগ।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম বন সার্কেলের বন সংরক্ষক বিপুল কৃষ্ণ দাসের নির্দেশনায় বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে দিনব্যাপী বিশেষ অভিযান চালিয়ে এ বনভূমি উদ্ধার করা হয়।

চট্টগ্রাম দক্ষিন বন বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, সাতকানিয়া উপজেলার সোনাকানিয়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী এলাকায় চট্টগ্রাম দক্ষিন বন বিভাগের আওতাধীন বড়হাতিয়া বনের প্রায় আড়াই হাজার একর সংরক্ষিত ও রক্ষিত বন ডুবিয়ে দিয়ে একটি কৃত্রিম লেক তৈরি করে স্থানীয় রাজনৈতিক প্রভাবশালী একটি মহল।

সোনাকানিয়া নামের একটি ছড়া খালে বাঁধ দিয়ে বানানো এই লেকের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছিল স্থানীয় কৃষকরা। গত দুই বছর ধরে বানানো এই কৃত্রিম লেকে ডুবে যাওয়া বনভূমি উদ্ধারে বন বিভাগ ও স্থানীয় কৃষকরা দফায় দফায় চেষ্টা চালালেও প্রভাবশালী মহলের বাধায় সেটা সম্ভব হয়নি।

ডিএফও আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, চট্টগ্রাম বন অঞ্চলের বন সংরক্ষক বিপুল কৃষ্ণ দাসের নির্দেশনায় শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দক্ষিন বন বিভাগের বিভিন্ন রেঞ্জ ও বিটের কয়েকশ কর্মকর্তা-কর্মচারী সম্মিলিতভাবে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানে সোনাকানিয়া খালের বাঁধ কেটে দিয়ে কৃত্রিম লেক বিলীন করে দিয়ে বন বিভাগের আড়াই হাজার একর সংরক্ষিত এবং রক্ষিত বনভূমি উদ্ধার করা হয়।

বন বিভাগ জানায়, প্রভাবশালী মহল কর্তৃক খালে বাঁধ দিয়ে কৃত্রিম লেক তৈরি করার ফলে স্থানীয় কৃষকদের প্রায় ৫ হাজার একর জমির চাষাবাদ গত দুই বছর ধরে ব্যহত হয়ে আসছিল। বন বিভাগ কর্তৃক বাঁধ কেটে দেওয়ায় এসব জমি এখন চাষাবাদের আওতায় আসবে এবং রক্ষা পাবে সরকারী বনভূমি ও বনজসম্পদ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ওয়েবসাইট এর কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Design & Development BY ThemeNeed.Com